ব্র্যাক মাইগ্রেশনে মিডিয়া এ্যাওয়ার্ড দিলেন

বাংলাদেশের এক কোটিরও বেশি অভিবাসী পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বসবাস করছে। এর ৯০ ভাগই শ্রম অভিবাসী। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে এই অভিবাসীদের বিশাল অবদান রয়েছে। এইসব অভিবাসীদের অধিকার সুরক্ষায় ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমে ‘অভিবাসন বিষয়ক সেরা টেলিভিশন অনুষ্ঠান’ নির্মাতা হিসেবে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ কে ২০১৬ বর্ষের শ্রেষ্ঠ মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে ব্র্যাক। কলামিষ্ট, গণমাধ্যম কর্মী ও শ্রম অভিবাসন বিশ্লেষক হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ কে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করণে অভিবাসীদের অবদান শীর্ষক এটিএন বাংলায় ছায়া সংসদের পরিকল্পনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনার জন্য এই মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

আন্তজার্তিক অভিবাসন দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত ৪০ মিনিটের উক্ত প্রতিবেদনমূলক অনুষ্ঠানে যুক্তি তর্কের মধ্য দিয়ে অভিবাসন প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ, জবাবদিহি, অভিবাসীদের অধিকার রক্ষা, তাদের পরিবারের সুরক্ষা তৈরিতে করণীয়সহ বিভিন্ন বিষয় উপস্থাপিত হয়।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ড: মুহাম্মদ মুসার সভাপতিত্বে রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই মাইগ্রেশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, ব্র্যাকের সিনিয়র পরিচালক আসিফ সালেহ, ব্র্যাক মাইগ্রেশন বিভাগের প্রধান হাসান ইমাম প্রমূখ।

ইলেট্রনিক মিডিয়ায় শ্রেষ্ঠ পুরষ্কার প্রাপ্ত ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, অন্য যে কোন খাতের চেয়ে অভিবাসন খাতে আয় বেশি। তাই প্রবাসীদের নিরাপদ অভিবাসন ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির জন্য সরকারী ও বেসরকারী উদ্যোগে সার্বিক ও সমন্বিত কার্যক্রম গ্রহণ করা প্রয়োজন। কর্মীদের বেতন, থাকা-খাওয়া, চিকিৎসা প্রভৃতি বিষয়ে ন্যায্যতা আদায়ে রিসিভিং কান্ট্রিগুলোর সাথে প্রয়োজন অনুযায়ী দর কষাকষি ও আলোচনা চালিয়ে যেতে হবে। এ খাতের সুরক্ষা ও টেকসই উন্নয়নের জন্য বেসরকারি উদ্যোক্তাদের প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দ, স্বল্প সুদে ঋণ, প্রশিক্ষণের যন্ত্রপাতি আমদানীতে শুল্ক রেয়াত দেওয়া জরুরী। কিরণ বলেন, নিরাপদ অভিবাসনের জন্য কর্মী প্রেরণকারীদের নৈতিক মুল্যবোধ বিবেচনায় রাখতে হবে। আবার যারা বিদেশে যাচ্ছেন, তারাও যেন হুজুগে পড়ে কোন কিছু না জেনেই বিদেশ না যান সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

পুরষ্কার প্রাপ্ত অন্যান্যরা হচ্ছেন প্রিন্ট মিডিয়া ক্যাটেগরিতে ১ম বেলাল হোসেন বিপ্লব-রিপোর্টার দি ডেইলি স্টার, ২য় আদিল সাখাওয়াত-স্টাফ রিপোর্টার ঢাকা ট্রিবিউন এবং ৩য় আবু জর আনসার উদ্দিন আহমেদ-স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক সমকাল। টেলিভিশনে অনুসন্ধিৎসু প্রতিবেদনের জন্য ১ম মাশরেক রাহাত, স্টাফ রিপোর্টার মাছরাঙ্গা টেলিভিশন, ২য় সাবিনা ইয়াসমিন-স্টাফ রিপোর্টার এটিএন নিউজ এবং ৩য় মিরাজ হোসেন গাজি, স্টাফ রিপোর্টার বাংলা ভিশন। রেডিও ক্যাটেগরিতে ১ম মো: মোস্তাফিজুর রহমান-বাংলাদেশ বেতার। অনলাইন ক্যাটেগরিতে ১ম শরিফুল ইসলাম হাসান-সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক প্রথম আলো। এছাড়াও লোকাল মিডিয়া ক্যাটেগরিতে পুরস্কৃত হয়েছেন মো: ফারুক আহমেদ- ময়মনসিংহ ত্রিশাল প্রতিনিধি, দৈনিক ইত্তেফাক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাবেদ আহমেদ মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণে ডাটাবেইস সিস্টেম ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে বলেন এখানে অনেক নন-স্কিলড কর্মীও স্কিলড কর্মী হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়েছে। মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণে সরকারের বেধে দেওয়া ব্যয়কে পুনর্মুল্যায়ন করে নতুনভাবে অভিবাসন ব্যয় কত হতে পারে তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা চলছে। কারণ সরকারের নির্ধারিত ৩৭ হাজার টাকা দিয়ে মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণ করা হচ্ছে না। বায়রাকে আস্থার মধ্যে নিয়ে এই অভিবাসন ব্যয় পুনরায় নির্ধারণের কথা তিনি বলেন।

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/রবি

 

 

share this news to friends