৫ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেলেন ১০ সাংবাদিক

অভিবাসন বিষয়ে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় স্বীকৃতির অংশ হিসেবে ব্র্যাকের পক্ষ থেকে এ বছরের পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।
আজ বুধবার (১২ এপ্রিল, ২০১৭) সকালে রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে ৫ টি ক্যাটাগরিতে মোট ১০ জন সাংবাদিককে ‘অভিবাসন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ দেওয়া হয়।
 বিজয়ীরা হলেন প্রিন্ট মিডিয়া ক্যাটাগরিতে ১ম: দ্য ডেইলি স্টারের বেলাল হোসেন বিপ্লব, ২য়: ঢাকা ট্রিবিউনের আদিল সাখাওয়াত এবং ৩য়: সমকালের আবু যর আনছার উদ্দীন আহাম্মেদ। টেলিভিশন রিপোর্টিংয়ে ১ম: মাছরাঙার মাশরেক রাহাত, ২য়: এটিএন নিউজের সাবিনা ইয়াসমিন এবং ৩য়: বাংলাভিশনের মিরাজ হোসেন গাজী। টেলিভিশন প্রোগ্রামে ১ম পুরস্কার পেয়েছেন হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ, এটিএন বাংলায় প্রচারিত অনুষ্ঠানের জন্য, রেডিও ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ বেতারের মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, অনলাইন ক্যাটাগরিতে প্রথম আলোর শরিফুল ইসলাম হাসান এবং আঞ্চলিক সাংবাদিকতায় ইত্তেফাকের ত্রিশাল উপজেলা প্রতিনিধি ফারুখ আহমদ।
 বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ। অনুষ্ঠানে সভাপতি ছিলেন ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ডা. মোহাম্মাদ মুসা। বিশেষ অতিথি ছিলেন লেখক এবং গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ।
আরও উপস্থিত ছিলেন জুরি বোর্ড সদস্য: ৭১ টেলিভিশনের ডিরেক্টর সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) কে এম আলী রেজা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, ওয়ারবি ডেভেলপমেন্ট ফাউ-েশনের ডিরেক্টর জাছিয়া খাতুন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ব্র্যাকের স্ট্র্যাটেজি, কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট কর্মসূচির ঊর্ধ¦তন পরিচালক আসিফ সালেহ।
 প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাবেদ আহমেদ বলেন, সরকার চায় ভবিষ্যতে সবাই ট্রেনিং নিয়ে বিদেশে যাবে। এজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে, তবে বিষয়টি এতো সহজ নয়, চ্যালেঞ্জিং।
লেখক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, অভিবাসন কর্মীদের যাবতীয় সমস্যার ক্ষেত্রে সরকারকে এককভাবে দোষ দেওয়া ঠিক হবে না। এ সমস্যা মোকাবেলায় সরকারসহ বিভিন্ন শ্রেণীর ব্যক্তি, সুশীল সমাজ, রিক্রুটিং এজেন্সি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিসহ সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে ডা. মুহাম্মাদ মুসা নিরাপদ অভিবাসনের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমের ভূমিকা তুলে ধরে বলেন, বিদেশ যাওয়ার আগে ও পরে এবং সেখান থেকে দেশে ফিরে আসার পর তাদের যাবতীয় সমস্যা ও সম্ভাবনা প্রতিবেদন আকারে তুলে ধরে সাংবাদিকরা বড় ভূমিকা রাখতে পারে।  
মূল প্রবন্ধে ব্র্যাক মাইগ্রেশন কর্মসূচির প্রোগ্রাম হেড হাসান ইমাম বলেন, বিদেশ যাওয়ার আগে, বিদেশে অবস্থানকালে এবং বিদেশ থেকে ফিরে প্রতিটি ক্ষেত্রেই অভিবাসীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হন, সাংবাদিকরা তাদের বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার মাধ্যমে এই বিষয়গুলো তুলে ধরার দায়িত্ব নিতে পারেন এবং অভিবাসীদের অধিকার রক্ষায় কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারেন।
 
 

 

share this news to friends