ভিসা পরিবর্তনের সুবর্ণ সুযোগ পেলেন আমিরাতপ্রবাসীরা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা পরিবর্তনের নিষেধাজ্ঞা ছিলো গত ৮ বছর ধরে। এবার এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে। চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের (কভিড-১৯) কারনে প্রবাসীদের জন্য এই সুখবর দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

২০১২ সাল থেকে বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা পরিবর্তন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার। এতদিন বেশ বিপাকে ছিলেন প্রবাসীরা। তবে করোনা ভাইরাসের এ দুর্যোগের মধ্যে গত ১৬ মে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় মিলেছে কিছুটা স্বস্তি।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে এনআরবি কেয়ারের প্রেসিডেন্ট রফিক উল্লাহ গাজ্জালী বলেন, যারা এখানে অবৈধভাবে বসবাস করছেন তাদের ভিসা লাগানোর সুযোগ দেওয়া হয়েছে। 

সংযুক্ত আরব আমিরাত শারজাহ বাংলাদেশ সমিতির প্রেসিডেন্ট আবুল বাশার বলেন, এখন সবাই ভিসা পাবে। শুধু যারা আমিরাতের মধ্যে রয়েছেন।

দেশটিতে ভ্রমণ করতে এসে আটকে পড়া বাংলাদেশিরাও এ সুযোগ গ্রহণ করে, তার ভিসার ধরণ পরিবর্তন করতে পারবে। 

আল মানামা বিজনেস সার্ভিসেস ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. কামাল হোসেন সুমন বলেন, এখন যারা আমিরাতে বসবাস করছেন তারা ডিসেম্বরের আগ পর্যন্ত জরিমানা ছাড়াই ভিসা পাবেন। মার্চ মাসের আগে ভ্রমণ ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও জরিমানা পরিশোধ করে ভিসা পরিবর্তনের এ সুযোগ রয়েছে এখন।

করোনা ভাইরাসের এ দুঃসময়ে আমিরাত সরকার প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য অত্যন্ত ইতিবাচক দিক বলে মনে করেন অনেকে। ভাইরাসের সংক্রমণ কেটে গেলে দেশটিতে দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ থাকা শ্রম ভিসা খুলে দেওয়া হবে-সেই প্রত্যাশা সবার।

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/আরএস ##

share this news to friends