পাকিস্তানি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি বিএসএফ’র

লাদাখে চীনা বাহিনীর মহড়া উত্তেজনার মধ্যেই জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়ায় অস্ত্র-বোঝাই একটি পাকিস্তানি ড্রোন গুলি করে নামানোর দাবি করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্তে ওই ড্রোনটিকে গুলি করে নামানো হয় বলে জানা গিয়েছে। গুপ্তচরবৃত্তির উদ্দশ্যেই ড্রোনটি ভারতীয় আকাশসীমায় ঢুকেছিল বলে সূত্রের খবর। 


আজ শনিবার (২০ জুন) ভোরে এ ঘটনা ঘটে বলে ইন্ডিয়া টুডে সহ একাধিক ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর এসেছে।


গণমাধ্যমগুলো জানায়, কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলার হীরানগর তালুকে রাঠুয়া গ্রামে পাকিস্তানি ড্রোনটিকে গুলি করে নামায় বিএসএফ-এর ফরওয়ার্ড পোস্ট। বিএসএফ-এর ১৯ ব্যাটেলিয়েনের টহল দল প্রথম হীরানগর সেক্টরের রাঠুয়া গ্রামের ওপর ড্রোনটিকে উড়তে দেখে।


ভারতের দাবি, পাকিস্তানি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলোর জন্য আকাশ থেকে অস্ত্রশস্ত্র ফেলার জন্য এবং গুপ্তচরবৃত্তির জন্য ড্রোনটি ভারতে প্রবেশ করে থাকতে পারে। ড্রোনটিকে গুলি করে ভূপাতিত করার পর তার মধ্যে থেকে বেশ কিছু অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। এসব অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি এম-৪ আমেরিকায় তৈরি রাইফেল, ২টি ম্যাগজিন, ৬০ রাউন্ড বুলেট এবং সাতটি গ্রেনেড। 


আজ ভোর ৫টা ১০ মিনিটে ড্রোনটিকে গুলি করে নামানো হয়। বিএসএফ’র সাব-ইন্সপেক্টর দেবেন্দ্র সিং ড্রোনটিকে নামাতে আট রাউন্ড গুলি চালান। পানসারের বর্ডার আউটপোস্ট এর কাছে ড্রোনটিকে নীচে নামানো হয়।


ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে ২৫০ মিটার ভারতের ভেতরে নামানো হয় ড্রোনটিকে। ড্রোনের প্লেলোডে আলি ভাই নামে একজনের নাম পাওয়া গেছে। এই আলি ভাইয়ের জন্যই অস্ত্রশস্ত্র পাঠানো হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে। কে এই আলি ভাই, তার খোঁজ চলছে। আট ফুট চওড়া ড্রোনটিকে সীমান্তের ওপার থেকে পাকিস্তানি ঘাঁটি নিয়ন্ত্রণ করছিল বলে মনে করছে বিএসএফ।


মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/আরএস ##

 

share this news to friends